ঢাকাশুক্রবার, ৭ই অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, সকাল ৬:০৮
আজকের সর্বশেষ সবখবর

মঠবাড়িয়ায় মাদ্রাসা ছাত্রীকে জোরপূর্বক ধর্ষণ, সহযোগী গ্রেফতার

জুলফিকার আমীন সোহেল, মঠবাড়িয়া
জুন ৬, ২০২২ ৭:২৭ অপরাহ্ণ
পঠিত: 381 বার
Link Copied!

পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় প্রেমিককে ধাওয়া করে তাড়িয়ে দিয়ে আলিম ১ম বর্ষের এক মাদ্রাসা ছাত্রী (১৭) কে ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। এঘটনায় ওই ছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে ৩ জনকে আসামী করে রোববার রাতে মঠবাড়িয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। পুলিশ ধর্ষনের সহযোগিতার অভিযোগে এক নারীকে গ্রেফতার করেছে।

ধর্ষিত মাদ্রাসা ছাত্রীর ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য থানা পুলিশ সোমবার (৬ জুন) পিরোজপুর সিভিল সার্জন কার্যালয় প্রেরণ করেছেন।

মামলা সূত্রে জানাগেছে, উপজেলার গিলাবাদ গ্রামের চট্টগ্রামে কর্মরত গার্মেন্টন্স কর্মী শহিদুল ইসলামের স্ত্রী আয়শা বেগম তার বাড়িতে একা থাকায় রাতে ঘুমানোর জন্য প্রায়ই ওই মাদ্রাসা ছাত্রীকে ডেকে নিতেন। গত ২৩ মে ওই মাদ্রাসা ছাত্রী গভীর রাতে শহিদুল ইসলামের বাসার ছাদে প্রেমিক হেলাল’র (৩৫) সাথে কথা বলতে যায়। বিষয়টি একই গ্রামের আঃ কাদের খার পুত্র রিয়াজ খা (২২) টের পেয়ে সুপারি গাছ বেয়ে ওই গার্মেন্টন্স কর্মী শহিদুল ইসলামের বাসার ছাদে উঠে প্রেমিক হেলালকে মারধর করে তাড়িয়ে দেয়। পরে সে মাদ্রাসা ছাত্রীকে জোর পূর্বক ধর্ষণ করে।

ওই ছাত্রীর দিনমজুর বাবা জানান, শ্রমিকের কাজ করতে তিনি সম্প্রতি ফরিদপুরে যান। বাড়ির পাশের গার্মেন্টন্স কর্মী শহীদুলের স্ত্রী বাসায় একা থাকায় প্রায়ই তার মেয়েকে ঘুমানোর জন্য ডেকে নিতেন। মেয়ের দুর্ঘটনার খবর পেয়ে বাড়িতে আসি।

মঠবাড়িয়া থানার অফিসার ইনচার্জ মুহা. নূরুল ইসলাম বাদল জানান, এঘটনায় ওই ছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে ৩ জনকে আসামী করে রোববার রাতে একটি মামলা দায়ের করেন। ওই মামলায় আসামী আশয়া বেগমকে গ্রেফতার করে সোমবার দুপুরে আদালতে সোপর্দ করা হয়। বাকীদের গ্রেফতারে পুলিশী অভিযান অব্যাহত আছে।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো। বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।