ঢাকাবুধবার, ২৮শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, রাত ১০:৪৩
আজকের সর্বশেষ সবখবর

সাংবাদিক পরিচয়ে চাঁদাবাজির চেষ্টা, ৪ জন কারাগারে

নিজস্ব প্রতিবেদক
এপ্রিল ২০, ২০২২ ৫:৩৮ অপরাহ্ণ
পঠিত: 107 বার
Link Copied!

ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ে সাংবাদিক পরিচয়ে একটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে গিয়ে অনুমতি ছাড়াই ভিডিও ধারণ ও ভয়ভীতি দেখিয়ে চাঁদাবাজির চেষ্টার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় চারজনকে গ্রেপ্তার এবং তাদের কাছ থেকে বেসরকারি টিভি চ্যানেল এশিয়ান টিভি ও আমাদের বার্তা পত্রিকার আইডি কার্ড জব্দ করেছে পুলিশ।

বুধবার (২০ এপ্রিল) দুপুরে আদালতের মাধ্যমে তাদেরকে কারাগারে পাঠানো হয়। এর আগে, মঙ্গলবার উপজেলার খায়রুল্লাহ সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় থেকে তাদের আটক করা হয়। পরে সংশ্লিষ্ট থানায় মামলা করা হয়।

গ্রেপ্তাররা হলেন- সাইফুল ইসলাম খান (৩৮), আইনাল ইসলাম (৪২), জোবায়ের হাসান (২৪) ও গাড়িচালক মো. ইসহাক। তাদের মধ্যে সাইফুল ও আইনালের কাছ থেকে এশিয়ান টিভি এবং জোবায়ের হাসানের কাছ থেকে আমাদের বার্তা পত্রিকার পরিচয়পত্র পাওয়া যায়।

মামলায় অভিযোগ করা হয়, সকালে ওই চার ব্যক্তি স্থানীয় খায়রুল্লাহ সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে যান। পরে তারা শ্রেণিকক্ষে ঢুকে শিক্ষার্থীদের ভয়ভীতি দেখিয়ে ভিডিও ধারণ করে। প্রধান শিক্ষিকা ক্লাসে থাকা অবস্থায় এক পর্যায়ে তারা বিনা অনুমতিতে প্রধান শিক্ষিকার বাসা ও ছাত্রী হোস্টেলে গিয়েও ভিডিও ধারণ করে। এ সময় তারা প্রধান শিক্ষিকার বাসার আসবাবপত্র তছনছ করে ড্রেসিং টেবিলের ড্রয়ার থেকে ৭৫ হাজার টাকা নিয়ে নেন।

এ সময় প্রধান শিক্ষিকা রহিমা খাতুন ঘটনাটি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও গফরগাঁও থানায় জানায়। পরে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও সহকারি কমিশনার (ভূমি) কাবেরী রায় ও পুলিশ সদস্যরা গিয়ে প্রধান শিক্ষিকার কক্ষ থেকে ওই চারজনকে আটক করেন।

বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষিকা রহিমা খাতুন বলেন, সাংবাদিক পরিচয়ধারী সাইফুল ইসলাম খান, আইনাল ইসলাম, জোবায়েদ হাসান আমার কাছে এসে বলেন- আমরা সাংবাদিক। আপনি অনিয়মতান্ত্রিকভাবে প্রতিষ্ঠান চালাচ্ছেন। আপনার বিরুদ্ধে বিভিন্ন টিভি ও পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশ করা হবে। আপনার বিরুদ্ধে সমস্ত ডকুমেন্ট আমাদের কাছে আছে। যদি বাঁচতে চান তাহলে আমাদেরকে পাঁচ লাখ টাকা এখন দিতে হবে। না হলে রক্ষা নাই। আপনি গফরগাঁও থাকতে পারবেন না। এ অবস্থায় আমি টাকা দিতে অস্বীকৃতি জানালে তারা আরও উত্তেজিত হয়ে নানা ধরনের হুমকি দিতে থাকে।

তিনি আরও বলেন, এক পর্যায়ে তাদেরকে বসিয়ে টাকা সংগ্রহের কথা বলে আমি বাইরে বের হই। তারপর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা ও গফরগাঁও থানার ওসিকে মোবাইল ফোনে ঘটনাটি জানাই। পরে তাদেরকে আটক করে নিয়ে যাওয়া হয়।

গফরগাঁও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ফারুক আহাম্মেদ জানান, এ ঘটনায় মঙ্গলবার সন্ধ্যায় থানায় মামলা করা হয়। পরে বুধবার দুপুরে তাদেরকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো। বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।