ঢাকাবুধবার, ২৮শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, রাত ১০:৫১
আজকের সর্বশেষ সবখবর

মুনের ভূয়সী প্রশংসা কিম জং উনের

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
এপ্রিল ২২, ২০২২ ৪:৫৩ অপরাহ্ণ
পঠিত: 78 বার
Link Copied!

দক্ষিণ কোরিয়ার বিদায়ী রাষ্ট্রপতি মুন জায়ে-ইন-এর ভূয়সী প্রশংসা করেছেন চির প্রতিদ্বন্দ্বী উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উন। নজিরবিহীন এ প্রশংসায় ওঠে এসেছে দুই দেশের সম্পর্ক উন্নয়নে মুনের প্রচেষ্টার বিষয়টি।

তিন সপ্তাহেরও কম সময়ের আগে বিদায় নেয়া মুনের কাছে এক চিঠির মাধ্যমে এ শুভেচ্ছা বার্তা প্রেরণ করেন কিম। উত্তর কোরিয়ার রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা কেসিএনএ জানায়, ‘‘জাতির কল্যাণে, কার্যকালের শেষ দিন পর্যন্ত মুন জায়ে-ইন-এর প্রচেষ্টার প্রশংসা করেছেন কিম জং উন ।’’ খবরে বলা হয়, দুই নেতার মধ্যে যোগাযোগ ছিল ‘তাদের গভীর আস্থার বহিঃপ্রকাশ”। উত্তর কোরিয়ার নেতা প্রেরিত চিঠিটি পাওয়ার খবর নিশ্চিত করেছে মুন জায়ে-ইন-এর কার্যালয়।

সম্প্রতি সংলাপের মাধ্যমে আন্তঃকোরিয়ান সংকট নিরসনের পরামর্শ দেন মুন-জায়ে-ইন। একই সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্র-উত্তর কোরিয়া পরমাণু নিরস্ত্রীকরণ আলোচনা দ্রুত পুনরুদ্ধারের আশা প্রকাশ করেছিলেন তিনি। জবাবে বৃহস্পতিবার (২১ এপ্রিল) কিম বলেন, ‘‘উভয় পক্ষ যদি ‘আশা নিয়ে অক্লান্ত প্রচেষ্টা চালায়’ তাহলে সম্পর্ক গড়ে উঠবে। এর আগেও ‘ঐতিহাসিক বৈঠকে’র (২০১৯ সালের যুক্তরাষ্ট্র-উ. কোরিয়া সামিট) সময় এ ধরণের সম্ভাবনা আমরা উপহার দিয়েছিলাম।’’

২০১৯ সালে কিম জং উন এবং তৎকালীন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের মধ্যে অভূতপূর্ব বৈঠকের ব্যবস্থা করতে সাহায্য করেছিলেন মুন। আন্ত:কোরীয় সম্পর্ক উন্নয়নে পূর্বসূরিদের মত বৈরী নীতি পরিহার করেছিলেন তিনি।

২০১৮ সালে কিমের সাথে একাধিক বৈঠকে উভয় পক্ষ শান্তি ও পুনর্মিলনের প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল। যদিও উভয় পক্ষের বিভিন্ন বিতর্কিত পদক্ষেপে ভেস্তে যায় সে প্রচেষ্টা। গত বছর আবারও সম্পর্ক সংশোধন করার চেষ্টা করেছিলেন দুই নেতা। কিন্তু অস্ত্রের বিষয়ে সিউলের ‘দ্বৈত নীতি’র সমালোচনা করে আলোচনা থেকে সরেন আসেন কিম।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো। বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।